শিরোনামঃ
প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে তালা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ২লাখ টাকার চেক প্রদান নলতায় সাবেক সেনাসদস্য নুরুল ইসলাম কর্র্তৃক জমি দখল হয়রানির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন দক্ষতা প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর্মসংস্থার সৃষ্টি বিষয়ক কর্মশালা মিসেস ইলা হকের মৃত্যুতে স্বপ্নসিঁড়ি’র শোক প্রকাশ প্রবেশ নিষিদ্ধকালে অবৈধভাবে মাছ ধরার সময় সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জে ৬ জেলে আটক তালায় অসহায় দিন মজুরের বাড়ীঘর ভাংচুরের অভিযোগ তালায় পানি কমিটির ত্রৈমাসিক সভা অনুষ্ঠিত তালায় গলায় রশি দিয়ে এক বৃদ্ধ’র আত্নহত্যা সম্মেলনের মাধ্যমে সাতক্ষীরা জেলা যুবদলের কমিটি গঠনের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন বাতিল হচ্ছে পিইসি-জেএসসি পরীক্ষা

আশাশুনিতে সেফটি ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করতে গিয়ে এক শিক্ষকসহ তিন জনের মৃত্যু

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:

  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ৩১ জুলাই ২০২০, ১০:৪৬
  • ৬৮

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে সেফটি ট্যাংক পরিষ্কার করতে গিয়ে এক শিক্ষকসহ তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার পুঁইজালা গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।
মৃত ব্যক্তিরা হলেন, উপজেলার শ্রীউলা ইউনিয়নের পুঁইজালা গ্রামের লক্ষীকান্ত সানার ছেলে ও পুঁইজালা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জগদীশ সানা (৫৬), একই গ্রামের পরিমল সানার ছেলে তপন কুমার সানা (৪০) ও সোনা দাসের ছেলে সুইপার মদন দাস (৩০)।
সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: হিসাম আল কবির জানান, আশাশুনির তিনজন ট্যাংকের ভিতর বাতাসে অক্সিজেন কমে যাওয়ায় নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে একে একে তিনজনই মুমুর্ষ অবস্থায় মারা যায়। চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় বলে এসফেকশিয়া। হাসপাতালে নিয়ে এলে তিনজনকেই মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।
শিক্ষক জগদীশ সানার ছেলে চন্দন সানা জানান, সেফটি ট্যাংক পরিষ্কারের জন্য সুইপার মদন দাস সকাল ৯টা থেকে কাজ শুরু করেন। পরে তার কোন সাড়া না পাওয়ায় বাবা জগদীশ সানা সেফটি ট্যাংকের ভিতরে দেখতে থাকেন। এরপর বাবার কোন সাড়া না পাওয়ায় তার চাচাতো ভাই তপন সানা সেফটি ট্যাঙ্কের ভিতর মুখ ঢোকান। কিছুক্ষণ পর তারও কোন সাড়া না মেলায় পরে তারা জানতে পারেন ট্যাংকের ভিতর বাতাসে অক্সিজের কমে যাওয়ায় নিঃশ্বাস বন্ধ হয়ে একে একে তিনজনই মুমুর্ষ অবস্থায় সেখানে অবস্থান করছেন। দ্রুত তাদেরকে উদ্ধার করে স্থানীয় চিকিৎসক বিধান মন্ডলের কাছ থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে দুপুর ১টার দিকে সাতক্ষীরার সদর হাসপাতালে আনার পর সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে, একই সাথে তিন জনের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসছে।
আশাশুনি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গোলাম কবীর, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান অসিম বরন চক্রবর্তী ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা শাকিল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। #

ভাল লাগলে শেয়ার করুন

সংশ্লিষ্ঠ আরও খবর