শিরোনামঃ
প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে তালা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ২লাখ টাকার চেক প্রদান নলতায় সাবেক সেনাসদস্য নুরুল ইসলাম কর্র্তৃক জমি দখল হয়রানির অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন দক্ষতা প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর্মসংস্থার সৃষ্টি বিষয়ক কর্মশালা মিসেস ইলা হকের মৃত্যুতে স্বপ্নসিঁড়ি’র শোক প্রকাশ প্রবেশ নিষিদ্ধকালে অবৈধভাবে মাছ ধরার সময় সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জে ৬ জেলে আটক তালায় অসহায় দিন মজুরের বাড়ীঘর ভাংচুরের অভিযোগ তালায় পানি কমিটির ত্রৈমাসিক সভা অনুষ্ঠিত তালায় গলায় রশি দিয়ে এক বৃদ্ধ’র আত্নহত্যা সম্মেলনের মাধ্যমে সাতক্ষীরা জেলা যুবদলের কমিটি গঠনের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন বাতিল হচ্ছে পিইসি-জেএসসি পরীক্ষা

তামিম-মেহেদির ব্যাটে ঢাকার সহজ জয়

  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৭:৪৫
  • ১৭৫

তামিম ইকবাল-মেহেদি হাসানের ব্যাটে সহজ জয় পেলো ঢাকা। বঙ্গবন্ধু বিপিএলের ২০তম ম্যাচে সিলেট থান্ডারকে ৮ উইকেটে হারায় ঢাকা প্লাটুন। সিলেটের জনসন চার্লসের তান্ডবের পর তামিমের মাইলফলকে পৌঁছার দিনে চতুর্থ জয় তুলে নেয় ঢাকা। বাংলাদেশের এ বাঁহাতি ওপেনার প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে বিপিএলে দুই হাজার রান পূর্ণ করলেন। এদিন সাগরিকায় তামিমের মাইলফলকের দিনে টানা দ্বিতীয় অর্ধশতক পেলো মেহেদী হাসান।

টসে জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় সিলেটের অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন।
এর আগে টসে জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন সিলেটের অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন। আগের ম্যাচে বঙ্গবন্ধু বিপিএলে প্রথম সেঞ্চুরি করা আন্দ্রে ফ্লেচার এদিন শূন্য রানে ফেরেন। আগের ম্যাচে ঝড়ো ৯০ রান করা চার্লস এদিনও ব্যাট হাতে ঝড় তোলেন।

৪ রানে জীবন পাওয়া এই ক্যারিবিয়ান ৪৫ বলে ৩ চার ও ৮ ছক্কায় ৭৩ রান করেন। শেষদিকে মোহাম্মদ মিঠুন ও শেরফান রাদারফোর্ডের ব্যাটে ১৭৪/৪ সংগ্রহ দাঁড় করায় সিলেট। ৩১ বলে ৪৯ রানে অপরাজিত থাকেন মিঠুন। আর প্রথমবারের মতো বিপিএল খেলতে আসা রাদারফোর্ড ২৮ বলে করেন অপরাজিত ৩৮ রান। ঢাকার পক্ষে শহিদ আফ্রিদি ২৬ রানে নেন ২ উইকেট। আর শাদাব ও মেহেদি নেন ১টি করে উইকেট।

এই ম্যাচের আগে তামিমের রান ছিলো ১৯৬৯ রান। সিলেট থান্ডারের বিপক্ষে ঢাকার হয়ে সর্বোচ্চ অপরাজিত ৬০ রান করে মাইলফলকটি ছাড়িয়ে যান তামিম। স্বীকৃত টি-টোয়েন্টিতে এটি তামিমের ৩৫তম অর্ধশতক। বিপিএলে ৬২ ইনিংসে ব্যাট করে সর্বোচ্চ ২০২৯ রান তামিমের। আর ৭২ ইনিংসে ব্যাট করে ১৯৩৭ রান নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছেন বাংলাদেশের উইকেট রক্ষক-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহীম। শেষ ম্যাচে ২৯ বলে ৫৯ করা মেহেদি এ ম্যাচে করেন ২৮ বলে ৫৬ রান। এছাড়া এনামুল করেন ৩২ আর জাকের আলী করেন অপরাজিত ২২ রান।

ভাল লাগলে শেয়ার করুন

সংশ্লিষ্ঠ আরও খবর